৫ই জুলাই, ২০২০ ইং | ২১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:৩৯

যুক্তরাষ্টে নয়, চীনে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে: ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক (কৃষি কণ্ঠ অনলাইন সংস্করণ) ।। বিশ্ব ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে চীনে অনেক বেশি মানুষ মারা গেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

গত শনিবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে ট্রাম্প বলেন, মৃত্যুর সংখ্যার বিচারে আমরা এক নম্বর নই। চীনে আমাদের চেয়ে অনেক বেশি মানুষ মারা গেছেন। সত্যিটা কী আপনারা জানেন, আমিও জানি। কিন্তু আপনারা সে কথা লিখতে চাইছেন না।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ৭ লাখ ৬৪ হাজার ২৬৬ জন শনাক্ত হয়েছেন। প্রাণহানি ৪০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মৃত্যুতে দেশটি শীর্ষে অবস্থান করছে। আর চীন প্রাণহানি ঘটেছে ৪ হাজার ৬৩২ জনে। শনাক্ত হয় ৮২ হাজার ৭৪২ জন।

একইসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, করোনা মহামারি শুরু হওয়ার আগেই থামিয়ে দেয়া যেতে পারতো। কিন্তু তা থামানো হয়নি। এখন সারা পৃথিবী তার জন্য ভুগছে। হুমকির সুরে তিনি বলেন, চীন এ মহামারির জন্য ‘দায়ী হয়’ তবে তারা ফল ভোগ করবে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দেরি হওয়ার জন্য চীনকে দোষ দিচ্ছেন ট্রাম্প। তার কথায়, চীন আমাদের আগে থেকে জানাতে পারতো। কিন্তু জানায়নি। আমার মনে হয় তারা জানতো খারাপ কিছু ঘটছে। কিন্তু সে কথা প্রকাশ করতে তারা অস্বস্তিতে পড়েছিল।

ট্রাম্প জানান, কীভাবে করোনাভাইরাসের অতিমারি শুরু হলো, তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র গবেষণা করছে। তিনি বলেন, চীন বলছে তারা তদন্ত করছে। দেখা যাক তারা তদন্ত করে কী পায়। কিন্তু আমরাও আমাদের মতো করে তদন্ত করছি।

এর আগেই যুক্তরাষ্ট্র জানায়, সম্ভবত উহানের গবেষণাগারে বাদুড় নিয়ে গবেষণা হচ্ছিল। তখনই দুর্ঘটনাবশত করোনাভাইরাস বাইরে ছড়িয়ে পড়ে। অবশ্য চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই দাবি অস্বীকার করেছে।

%d bloggers like this: