১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:১২

টেস্ট না করেই রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট

ঢাকা অফিস (কৃষি কণ্ঠ অনলাইন সংস্করণ) ।। নমুনা নিয়ে করোনা পরীক্ষা না করেই পজেটিভ বা নেগেটিভ রিপোর্ট দিয়ে রিজেন্ট হাসপাতালের প্রতারণার প্রমাণ পেয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে আট জনকে র‌্যাবের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

সোমবার বিকেলে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরার শাখায় র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমের নেতৃত্বে চালানো অভিযানে এ চিত্র উঠে আসে। অভিযানে অসংখ্য ভুয়া করোনা রিপোর্টসহ হাসপাতালের বিভিন্ন নথি জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সারোয়ার আলম বলেন, কিছুদিন ধরে তাদের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ আসছিল। অভিযানে দেখা গেছে প্রতিষ্ঠানটি অসংখ্য নমুনা সংগ্রহ করলেও ৪২ টির মতো নমুনা পরীক্ষা করেছে। তাৎক্ষণিক ২৬টি রিপোর্ট পেয়েছি, যেগুলো পরীক্ষা না করেই রেজাল্ট দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, হাসপাতাল ভবনের পাশের ভবনের রিজেন্টের আইটি শাখা। সেখানেই ভুয়া রিপোর্ট তৈরী করানো হয়। এভাবে তারা তারা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। মনগড়া রিপোর্ট তৈরি ছাড়াও অভিযানের গিয়ে রোগীদের সঙ্গে কথা বলে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে।

র‌্যাব সূত্র জানিয়েছে, সম্প্রতি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তাদের কোভিড বিশেষায়িত হাসপাতাল ঘোষণা করে ইন-হাউজ রোগীদের কোভিড টেস্ট ও চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু তারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করছিল। এছাড়া, হাসপাতালটি ২০১৪ সালের পর তাদের লাইসেন্স নবায়ন করেনি। করোনার পরীক্ষা বিনামূল্যে করার কথা থাকলেও রোগীদের কাছ থেকে তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকা আদায় করতো।

সূত্র জানিয়েছে, অভিযানে আটজনকে র‌্যাব হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তবে তাদের পরিচয় এখনো জানানো হয়নি। রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখায় অভিযান চলছিল।

এছাড়া, রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও র‌্যাব ঘিরে রেখেছে। সেখানেও অভিযান চালোনো হচ্ছে।

( সম্পাদনায়:অনলাইন নিউজরুম এডিটর )

%d bloggers like this: