২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৩৩

ই-প্লাজায় ওয়ালটন পণ্যের বিক্রি বেড়েছে ৫ গুণেরও বেশি

অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক (কৃষি কণ্ঠ অনলাইন সংস্করণ) ।। মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ঘরবন্দি মানুষ। লকডাউন দেশের বিভিন্ন এলাকা। চলছে সরকারি সাধারণ ছুটি। সীমিত আকারে শপিংমল খুললেও, নিজেদের নিরাপদ রাখতে ঘরের বাইরে যাচ্ছেন না সচেতন মানুষ। এমন অবস্থায় অনলাইনে অর্ডার নিয়ে প্রয়োজনীয় পণ্যটি ঘরেই পৌঁছে দিচ্ছে দেশের ইলেকট্রনিক্স ও প্রযুক্তিপণ্যের শীর্ষ ব্র্যান্ড ওয়ালটন। অনলাইনের ই-প্লাজা থেকে ওয়ালটন পণ্য কেনায় রয়েছে আকর্ষণীয় মূল্যছাড়। ফলে ই-প্লাজায় ওয়ালটন পণ্যের বিক্রি আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

জানা গেছে, চলতি বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি এ দুই মাসের চেয়ে মার্চ ও এপ্রিল মাসে অনলাইনের ই-প্লাজার (https://eplaza.waltonbd.com) মাধ্যমে পাঁচগুণেরও বেশি পণ্য বিক্রি হয়েছে ওয়ালটনের। আর মে মাসের প্রথম ১০ দিনে মার্চ ও এপ্রিলের মোট বিক্রি ছাড়িয়ে গেছে।

এদিকে, ই-প্লাজা থেকে কেনাকাটায় পণ্যভেদে ১০ থেকে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট দিচ্ছে ওয়ালটন। নগদ ক্রয়ের পাশাপাশি রয়েছে জিরো ইন্টারেস্টে ১২ মাসের ইএমআই সুবিধা। এমনকি ৬ মাসের ইএমআই সুবিধায় পণ্য কেনায় ৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে ওয়ালটন। ই-প্লাজা থেকে কেনা পণ্যের মূল্য ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড, অনলাইন ব্যাংকিং, মোবাইল ব্যাংকিং যেমন বিকাশ, রকেট, নগদ ইত্যাদির মাধ্যমে পরিশোধের সুযোগ রয়েছে। আছে ক্যাশ অন ডেলিভারির সুবিধা।

এ বিষয়ে ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক তানভীর রহমান বলেন, করোনাভাইরাস দুর্যোগের মধ্যে মানুষ যাতে তার প্রয়োজনীয় পণ্যটি ঘরে বসে পেতে পারে, এজন্য ওয়ালটন অনলাইন সেলসে জোর দিচ্ছে। বাংলাদেশে ওয়ালটনের রয়েছে সর্ববৃহৎ অনলাইন সেলস নেটওয়ার্ক। এ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দেশব্যাপী ডেলিভারি দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ই-প্লাজা থেকে কেনা পণ্যে রয়েছে আকর্ষণীয় ডিসকাউন্ট। যার ফলে অনলাইনে ব্যাপক বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন পণ্য।

তিনি জানান, লকডাউন চলাকালে অনলাইন কেনাকাটায় সবচেয়ে বেশি চাহিদা বেড়েছে হোম অ্যাপ্লায়েন্সের। এরপর রয়েছে রেফ্রিজারেটর, টেলিভিশন, মোবাইল ফোন, কম্পিউটার ও এক্সেসরিজ, এয়ার কন্ডিশনার এবং ইলেকট্রিক অ্যাপ্লায়েন্স। এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, বেশিরভাগ মানুষকে নিজেই ঘরের কাজ করতে হচ্ছে। এজন্য চাহিদা বেড়েছে হোম অ্যাপ্লায়েন্সের। একসঙ্গে বেশি পরিমাণ বাজার করে সংরক্ষণ করতে হচ্ছে। যার জন্য অনলাইন কেনাকাটায় ফ্রিজের চাহিদা বেড়েছে। আর ঘরে বসে বিনোদন, যোগাযোগ ও জরুরি কাজের জন্য অনলাইনের মাধ্যমে মানুষ টিভি, মোবাইল ফোন, কম্পিউটার ইত্যাদি পণ্য কিনছেন।

তবে তার মতে অনলাইনে এ বিক্রির ঈদ এবং গরমকে কেন্দ্র করে স্বাভাবিকভাবে যে পরিমাণ পণ্য বিক্রি হয় তার তুলনায় খুবই কম। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ইলেকট্রনিক্স কিংবা প্রযুক্তিপণ্য মানুষ সাধারণত শোরুমে গিয়ে দেখে-শুনে পছন্দ করে কিনতে আগ্রহী। তাছাড়া, দেশের বেশিরভাগ মানুষ এখনো অনলাইন কেনাকাটায় অভ্যস্ত নন। এটা অনেকটা রাজধানীকেন্দ্রিক রয়ে গেছে।

ওয়ালটন ই-প্লাজার বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার এস এম সাকিবুর রহমান জানান, ই-প্লাজা থেকে ফ্রিজ, টিভি, এসি, মোবাইল ফোন এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স কেনায় ফ্ল্যাট ১০ শতাংশ মূল্যছাড় দেওয়া হচ্ছে। আর কম্পিউটার, ল্যাপটপ এবং কম্পিউটার যন্ত্রাংশে দেওয়া হচ্ছে ১৫ শতাংশ ছাড়। ই-প্লাজা থেকে পণ্য অর্ডার দিতে কোনো সমস্যা হলে গ্রাহকরা ওয়ালটনের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ (https://www.facebook.com/Waltonbd) কিংবা হটলাইনের (১৬২৬৭ এবং ০৯৬১২৩১৬২৬৭) সাহায্য নিতে পারেন।

( সম্পাদনায়:অনলাইন নিউজরুম এডিটর )

%d bloggers like this: